জন্মদিনে দুবাই নিয়ে না যাওয়ায় স্ত্রীর ঘুষিতে স্বামীর মৃত্যু


প্রকাশিত : ২৫ নভেম্বর ২০২৩

ভারতের মহারাষ্ট্রের পুনের ওয়ানওয়াদি এলাকায় আবদার না মেটানোয় স্ত্রীর ঘুষিতে রিয়েল এস্টেট ডেভেলপার নিখিল খান্নার মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (২৫ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, গত ১৮ সেপ্টেম্বর ৩৬তম জন্মদিন ছিল স্ত্রী রেনুকার। জন্মদিনে দুবাই নিয়ে যাওয়ার আবদার করেছিলেন তিনি। ইচ্ছে ছিল সেখানেই স্বামীর সঙ্গে নিজের জন্মদিন উদযাপন করবেন। তবে ইতিবাচক সাড়া দেননি নিখিল খান্না। এতে দুজনের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে রেনুকা নিখিলকে ঘুষি দিলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

পুনের ওয়ানাভদি থানার এক জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা জানান বলেন, আমরা প্রাথমিক তদন্তে জেনেছি, রেণুকার ইচ্ছে ছিল তার জন্মদিনে নিখিল যেন তাকে দুবাই নিয়ে যান। নিখিল তাতে রাজি না হওয়ায় দুজনের মধ্যে ঝগড়া বেঁধে যায়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে নিখিলের নাকে ঘুষি মেরে বসেন রেণুকা।

তিনি বলেন, রেণুকা তার স্বামীর নাকে এতটাই জোরে ঘুষি মেরেছিলেন যে, ওই আঘাতে নিখিলের নাক ও কয়েকটি দাঁতও ভেঙে যায়। ফলে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণে নিখিল জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। এ ঘটনার পরপর পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে নিখিলকে সসুন জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় রেণুকার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই দম্পতির মধ্যে আগেও নানা কারণে ঝগড়া-বিবাদ লাগত বলে জেনেছে পুলিশ। যেমন বিবাহ বার্ষিকীতেও স্বামীর কাছ থেকে উপহার না পাওয়ায় বিরক্ত হয়েছিলেন রেণুকা। এছাড়া রেণুকা তার এক আত্মীয়ের জন্মদিন উপলক্ষে এর আগে দিল্লি যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সে সময়েও নিখিল তাতে রাজি হননি।

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ